বিশ্বমঞ্চ কাঁপাবে কাটার মাস্টার

0
11

আর মাত্র কয়েকদিন পরেই শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর বিশ্বকাপ ক্রিকেট। ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) দ্বাদশতম এ আসর বসছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে। ৩০ মে লন্ডনের ওভালে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠবে ২০১৯ বিশ্বকাপের। ৩০ মে থেকে শুরু হওয়া এ বিশ্বকাপ ১৪ জুলাই পর্যন্ত চলবে। আর মাত্র সাত দিন বাকি এর পরেই মাঠে গড়াবে বিশ্বকাপ।

গত চার বছরের পরিসংখ্যানের বিচারে বাংলাদেশের সেরা বোলার মোস্তাফিজুর রহমান। সেরা উইকেট শিকারিও তিনি। ২০১৫ সালে অভিষেকের পর ক্রিকেট দুনিয়ায় আলোড়ন সৃষ্টি করেন এই বাঁহাতি বোলার। কাটার মাস্টার বলে তার খ্যাতি ছড়িয়ে পড়ে।

মোস্তাফিজের কাটারের শিকার হন ক্রিকেটবিশ্বের সব নামকরা তারকা ব্যাটসম্যান। আইপিএলে দুর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্যে পরিচিত হয়ে ওঠেন ফিজ নামে। ক্যারিয়ারে চার বছরে তিনি খেলেছেন ৪৬টি ওয়ানডে। ওভার প্রতি ৪.৮৮ গড়ে রান দিয়েছেন ১ হাজার ৮৪৯। বোলিং স্ট্রাইক রেটও ২৭.৩। তিনবার করে ৫ উইকেট এবং ৪ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

মোস্তাফিজের পরিসংখ্যান বলছে, ২০১৫ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত ৪৬টি ম্যাচ খেলে ৮৩ উইকেট নিয়েছেন মোস্তা। তার চেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেও সেটি পারেননি মাশরাফি-সাকিবরা। ফিজের চেয়ে ১৯ ম্যাচ বেশি খেলে ৮২ উইকেট দখলে নিয়েছেন ম্যাশ। আর ১১ ম্যাচ বেশি খেলে ৬৭ উইকেট নিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে সেরা সময় পার করার পর ইনজুরিতে পড়ে নিজের ছন্দ হারিয়ে ফেলেন মোস্তাফিজ। এর পর ছন্দে ফিরতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

ইংল্যান্ডের কন্ডিশনে খেলার অভিজ্ঞতা আছে ফিজের। সেখানে কাউন্টি ক্রিকেট দল সাসেক্সের হয়ে ৪ উইকেট নিয়েছিলেন। ইনজুরিতে পড়ে খুব বেশি ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি। এর আগেও বয়সভিত্তিক দলের হয়ে ইংলিশ কন্ডিশনে তার বোলিং অভিজ্ঞতা রয়েছে।

হাসিবুল হোসেন বলেন, মোস্তাফিজ এমন একজন বোলার যার ছন্দ খুব গুরুত্বপূর্ণ। যে কোনো কন্ডিশনে ছন্দ খুঁজে পেলে সে প্রায় সব ব্যাটসম্যানকেই খাবি খাওয়াতে সক্ষম। এমন সময়ে ইংল্যান্ডে দলের সমন্বয় ও তাকে সাপোর্ট দিয়ে যাওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here