যৌতুক লোভী স্বামীর কান্ড

0
14

যৌতুকের টাকা না পেয়ে ইসমোতারা (২২) নামে এক গৃহবধুকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করেছে যৌতুকলোভী স্বামী। প্রাণে বেঁচে যাওয়া এক কন্যা সন্তানের জননী ওই গৃহবধু বর্তমানে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ইসমোতারার পিত্রালয় সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর বাজার সংলগ্ন দিনমজুর রফিকুল ইসলামের বাড়িতে।
সুত্র মতে, প্রায় আড়াই বছর আগে ইসমোতারার বিয়ে হয় লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার উত্তর ডাউয়াবাড়ি গ্রামের কাশেম আলীর পুত্র মেহেদি হাসান দুলুর সাথে। বিয়ে করে স্ত্রীকে নিয়ে যাওয়ার পর যৌতুকের দেড় লাখ টাকা না পাওয়া পর্যন্ত ইসমোতারাকে আর পিত্রালয়ে না পাঠিয়ে শারিরীক নির্যাতন চালায় স্বামী মেহেদি। প্রায় এক মাসে পূর্বে যৌতুকের ২০ হাজার টাকা দেয়ার শর্তে ইসমোতারা ও তার কন্যা সন্তানকে নিয়ে শ্বশুরালয়ে আসে মেহেদি। শর্তমতে টাকা প্রদান করা হলেও বাকি টাকার জন্য চাপ দেয় যৌতুকলোভী মেহেদি। এক পর্যায় স্ত্রী শ্বশুড়ালয়ে রেখে সে নিরুদ্দেশ হয়।
ঘটনার আগের দিন মেহেদি কুড়িগ্রাম থেকে শ্বশুড়ালয়ের বাড়ির পাশে ভগ্নিপতি আব্দুল মিয়ার (ট্রাক চালক) বাড়িতে আসে। গতকাল ভোরে সুযোগ বুঝে ইসমোতারা ঘরে ঢুকে গলায় ছুরি চালায়। এ সময় তার আত্মচিৎকারে অন্য ঘরে থাকা বাবা-মা বের হলে মেহেদি দৌড়ে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় তার ব্যবহৃত মোবাইল সেট ও একটি ব্যাগ পড়ে যায়। পরে গ্রামের অন্যান্য লোকজনের সহায়তায় গুরুতর আহত ইসমোতারাকে ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here