Tuesday , August 3 2021
Home / অপরাধ / শিবগঞ্জের বিনোদপুরে ভুয়া এনজিও আপস লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে : প্রশাসনের ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস

শিবগঞ্জের বিনোদপুরে ভুয়া এনজিও আপস লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে : প্রশাসনের ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস

চাঁপাইনবাবগঞ্জ, ৩০ মে ২০২১ইং (ডিজিটাল বাংলাদেশ রিপোর্ট): চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার বিনোদপুর বাজারে আপস নামে একটি ভুয়া এনজিও জনগণের লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, জয়েন্ট স্টক `আপস বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড’ নামে সংস্থার রেজিষ্ট্রেশন দেয়। যাহার রেজিস্ট্রেশন নাম্বার জে.এস.সি ঢাকা সি-১৬৫৪৮৬।  এই সংগঠনটি রেজিস্ট্রেশন হওয়ার সময় জয়েন্ট স্টকে উল্লেখ করা হয়েছিল এটি একটি সেবামূলক, স্বেচ্ছাসেবী, অ-রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান হিসাবে কাজ করবে।

পরবর্তীতে অন্য এলাকার সুচতুর, ধান্ধাবাজ, ধুরন্ধর ব্যক্তি আবু সালেক ওরফে ছালেক এই এলাকার মোঃ এখলাসুর রহমানের বড় মেয়েকে বিয়ে করে বিনোদপুরে প্রতারনার কাজের জন্য আস্তানা গড়ে তুলে (বিয়ের সময়ের প্রতারনার ঘটনাগুলি আমরা পরে ধারাবাহিক ভাবে তুলে ধরছি)।  বিনোদপুরে এসে ছালেক খোঁজ পায় ‘আপস বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড’ নামে একটু সংস্থার। তখন এই সংস্থাটি অন্য ব্যক্তির নামে রেজিষ্ট্রেশন ছিল। এরপর মৃত নওশাদ আলী ছেলে ছালেক কৌশলে টাকার বিনিময়ে বিধিবহির্ভুত ভাবে ‘আপস বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড’ নামের সংস্থাটি নিজের নামে করিয়ে নেয়। এরপরই ছালেক এই ‘আপস’ নামক সংগঠনটি অবৈধ ভাবে উচ্চ চড়া সুদে মানুষকে ঋণ দেওয়া শুরু করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়।

জয়েন্ট স্টক থেকে কোন সংস্থা রেজিষ্ট্রেশন পেলে সে সংস্থাটি কোন রকমেই অন্যের নামে ট্রানস্ফার (বদলী) করার করার কোন নিয়ম নাই। তাহলে ‘আপস বিজনেস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড’ ছালেকের নামে বদলী হলো কি ভাবে?

এ ছাড়া জয়েন্ট স্টক থেকে রেজিষ্ট্রেশনকৃত কোন সংস্থাকে ঋণদান কর্মসূচী চালানোর অনুমতি দেওয়া হয় না। কিন্তু এই ধুরন্ধর ছালেক কি ভাবে বিনোদপুর এলাকায় ঋণদান কর্মসূচী প্রকাশ্য এবং গোপনে চালিয়ে যাচ্ছে, সেটি খতিয়ে দেখার জন্য প্রশাসনের নজর দেওয়া অতি জরুরী হয়ে পড়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই ভুয়া এনজিও আপোসের কর্ণধার ধুরন্ধর ছালেক টাকার বিনিময়ে স্থানীয় মাস্তানদের হাতে রেখে এই ভুয়া এনজিওর নামে বিভিন্নভাবে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

এ ব্যাপারে শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান ‘আমাদের এই শিবগঞ্জ উপজেলায় মোট ৪২টি এনজিও তালিকাভুক্ত আছে। এই তালিকাভুক্ত ৪২টি এনজিওর মধ্যে আপস নামে কোন সংস্থা নেই। এর বাইরে যত এনজিও আছে সবগুলোই অবৈধ। অনেকগুলো অবৈধ এনজিওর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এবং বাকিগুলোর বিরুদ্ধে খুব শিগগিরই ব্যবস্থা নেয়া হবে’।

এই ভুয়া এনজিও আপোসের কর্ণধার ধুরন্ধর ছালেকের বিরুদ্ধে কোন তথ্য থাকলে dailydeshprem@gmail.com এই ঠিকানায় ইমেইল করুন। অথবা আমাদের কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করতে পারেন। আপনার নাম পরিচয় গোপন রেখেই ছালেকের সব দুর্নিতি, অন্যায়, অবিচার, অনিয়ম, প্রতারনা আমরা জনসমক্ষে তুলে ধরবো….

About digitalbangladesh24

চেক

বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ও পাবনা প্রতিনিধি, ১১ জুন : বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *